সিঁথির ডাকে সাড়া দিলেন বলিউডের সেলিম

সাদাকালোসংবাদ ডেস্কঃ– বাংলাদেশি কণ্ঠশিল্পী সিঁথি সাহার ডাকে সাড়া দিলেন , নামজাদা সংগীত পরিচালক সেলিম মার্চেন্ট। শুধু সাড়া দিয়েই শেষ নয়, মুখোমুখি বসে দুজনে আড্ডা দিয়েছেন এক ঘণ্টারও বেশি সময়। তবে মহামারির কারণে সেটি হলো অন্তর্জালে।

আর সেই প্রাণবন্ত ক্লোজডোর আড্ডার নির্বাচিত ৪০ মিনিট সিঁথি সাহা এবার প্রকাশ করতে যাচ্ছেন সবার জন্য।

সিঁথি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘মাঝে আমি মুম্বাই গিয়েছিলাম। কথা ছিল সেলিম সাহেবের সঙ্গে সরাসরি কথা হবে, গল্প হবে, কিন্তু দু’জনেরই সময় স্বল্পতার কারণে সেটি আর হয়ে ওঠেনি। এবার সেটি হলো অন্তর্জালে, দারুণ ও দীর্ঘ আড্ডা হয়েছে আমাদের। আশা করছি যেটুকু প্রকাশ করবো তাতে মুগ্ধ হবেন দুই দেশের দর্শকরাই।’

সিঁথি জানান, সেলিম মার্চেন্টের সঙ্গে তার পরিচয় করিয়ে দেন পাকিস্তানের অন্যতম সংগীতশিল্পী শাফকাত আমানত আলী। যার সঙ্গে সিঁথির বন্ধুত্ব লম্বা সময়ের। কিন্তু এরমধ্যে বলিউড-টলিউডের অসংখ্য সংগীতশিল্পীর সঙ্গে একই সম্পর্ক বিস্তৃত হতে দেখা যাচ্ছে। তবে কি সবটুকুর সিঁড়ি ওই শাফকাতই!

জবাবে সিঁথি বলেন, ‘একদমই নয়। শাফকাতের সঙ্গে আমার সম্পর্কটা নিখাদ বন্ধুত্বের। আর অন্যদের সঙ্গে পরিচয় বা সম্পর্কটা শিল্পী হিসেবে। সৌজন্য সাক্ষাতের মতো। মূলত তাদের ভক্ত আমি। তো এরমধ্যে প্রায় ৫০ জন ভারতীয় শিল্পীর সঙ্গে কাজ করার সুযোগ হয়েছে আমার। যার বেশিরভাগ সংযোগ করে দিয়েছেন ঊষা উথ্থুপ দিদি। যেটা অনেকেরই অজানা। উনি আমাকে না হেল্প করলে বলিউডের এত বড় বড় মানুষের নাগাল আমি জীবনেও পেতাম না।’

সেটি অনুভব করা যায় মাছরাঙা টিভির জনপ্রিয় শো ‘সিঁথির অতিথি’তে চোখ রাখলে। শোটি জনপ্রিয় বটে, ততধিক বিস্ময়কর। কারণ, দেশের জনপ্রিয় ও কিংবদন্তি শিল্পীরা তো বটেই, এই শোতে সিঁথির অতিথি হয়েছেন ভারতের কুমার শানু, অনুপ জলোটা, কবিতা কৃষ্ণমূর্তি, সাধনা সারগাম, ঊষা উথ্থুপ, অন্তরা মিত্র, রূপঙ্কর বাগচী, শ্রীকান্ত আচার্য, জয় সরকার, লোপা মুদ্রার মতো শিল্পীরা।

মূলত তারই ধারাবাহিকতায় ১০ জুলাই রাত ১০টায় মাছরাঙা টিভিতে সিঁথির অতিথি হচ্ছেন বলিউডের সেলিম-সুলেমান জুটির সেলিম মার্চেন্ট।
শো’য়ের একটি স্থিরচিত্র
যে জুটি নিজেদের প্রমাণ করেছেন ‘আজা নাচলে’, ‘চাক দে ইন্ডিয়া’, ‘কুরবান’, ‘ব্যান্ড বাজা বারাত’, ‘রব নে বানা দে জোড়ি’, ‘ফ্যাশন’, ‘হিরোইন’সহ বলিউডের অসংখ্য ছবিতে। কাজ করেছেন অস্কার জয়ী মার্কিন নির্মাতা জেফরি ডি ব্রাউনের ‘সোল্ড’ ছবিতেও।
এরমধ্যে রেকর্ড হওয়া এই শোতে কী কথা হলো দুজনার? জবাবে সিঁথি বলেন, ‌‌‘অনেক কথা। যার অনেকটাই অজানা আমাদের। সেলিম বলেন, তিনি একবারই ঢাকায় এসেছেন। মুগ্ধ হয়েছেন। বিশেষ করে আমাদের সংস্কৃতি তাকে বেশি টেনেছে বলে জানান। এরপর উনার লাইফস্টাইল, পছন্দের গান, সামনের পরিকল্পনা নিয়ে কথা হলো। কথায় কথায় নিজের পছন্দের সাতটি গানের অংশ বিশেষ শুনিয়েছেন আমায়। কথা বলে মনে হলো, তিনি খুবই আন্তরিক একজন মানুষ।’
‘সিঁথির অতিথি’ নিয়ে আর কি পরিকল্পনা রয়েছে, জানতে চাইলে এই শিল্পী বলেন, ‘মাত্র ৮ পর্বের পরিকল্পনা নিয়ে শুরু করেছি। এখন চলছে ৪৮ পর্ব! চোখের পলকে হলো। তবে এটি শিগগিরই শেষ করবো। নতুন আয়োজন নিয়ে ভাবছি এখন।’
শুধু অনুষ্ঠান নয়, সিঁথি জানান শিগগিরই ধারাবাহিকভাবে মুক্তি দেবেন হিন্দি, উর্দু ও বাংলা ভাষায় তৈরি একাধিক গান। যে গানগুলোতে তার সহশিল্পী হিসেবে থাকছেন ভারত-পাকিস্তানের বিখ্যাত শিল্পীরা। গল্প নয়, রেকর্ডিং শেষ আগেই। অপেক্ষা শুধু মহামারিমুক্ত সুস্থ পৃথিবীর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here