বঙ্গমাতা

মোঃ মানিক হোসেন
বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব এর ৯১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও অসচ্ছল মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়।
আজ রবিবার সকাল ১০:৩০ মিনিটে রাজশাহীর জেলা শিল্পকলা একাডেমীর মিলনায়তনে এ আলোচনা সভাটি অনুষ্ঠিত হয় এবং সভায় সভাপতিত্ব করেন রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, শেখ ফজিলাতুন্নেছার মতো ধীরস্থির, বুদ্ধিদীপ্ত, দূরদর্শী, স্বামী অন্তপ্রাণ মহিলার সাহসী, বলিষ্ঠ, নির্লোভ ও নিষ্ঠাবান ইতিবাচক ভূমিকাই শেখ মুজিবকে বঙ্গবন্ধু, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি হতে সহায়তা করেছে। জনগণের কল্যাণে সারাজীবন তিনি অকাতরে দুঃখবরণ এবং সর্বোচ্চ আত্মত্যাগ করেছেন। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালো রাত্রিতে জাতির পিতার হত্যাকারীদের হাতে বেগম মুজিব নির্মম হত্যাযজ্ঞের শিকার হয়ে শাহাদাতবরণ করেন। ইতিহাসের নিষ্ঠুরতম হত্যাকাণ্ডের সময়ও বঙ্গবন্ধুর আজীবন সুখ-দুঃখের সাথী মৃত্যুকালেও তাঁর সঙ্গী হয়েই রইলেন। ৮ আগস্ট বঙ্গমাতার জন্মদিনে এই মহীয়সী নারীর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করে, বঙ্গবন্ধু ও বাঙালির আজীবন সুখ-দুঃখের সঙ্গী এই মহীয়সী নারীর প্রতি অতিথিবৃন্দ জানিয়েছেন গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি।

বক্তারা আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুর জীবনে ‘শক্তিঘর’ ছিলেন বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব।
সংকটে সংগ্রামে নির্ভীক সহযাত্রী ছিলেন বঙ্গমাতা। বঙ্গবন্ধুর জীবনে ‘শক্তিঘর’ ছিলেন বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব।  বঙ্গমাতাকে গভীর শ্রদ্ধায় স্মরণ করা হয় এ আলোচনা সভায়।

উক্ত সভায়, নগদ মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে ৩০ জনকে ২০০০ করে টাকা ও ১০ জনকে ১০ টি সেলাই মেশিন প্রদান করা হয়। জেলা প্রশাসকের অর্থায়নে ৩ টি, জেলা মহিলা বিষয়ক এর পক্ষ থেকে ৭টি সেলাই মেশিন মোট ১০ জনকে ১০ টি সেলাই মেশিন প্রদান করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রধান অতিথি রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. মোঃ হুমায়ুন কবির, বিশেষ অতিথি রাজশাহী রেঞ্জ, ডিআইজি, পিপিএম,বিপিএম মোঃ আব্দুল বাতেন, রাজশাহী, আরএমপি, পুলিশ কমিশনার মোঃ আবু কালাম সিদ্দিক, রাজশাহী পুলিশ সুপার, বিপিএম (বার) এ বি এম মাসুদ হোসেন, রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ, সিনিয়র সহ-সভাপতি শাহীন আক্তার রেনীসহ আরও অনেকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here