মেসির

সাদাকালোসংবাদ ডেস্ক: ক্লাব ফুটবলে মেসির সাফল্য যেখানে আকাশছোঁয়া, দেশের হয়ে ততটাই ম্লান। আকাশি-সাদার জার্সিধারী মেসি পাঁচটি ফাইনাল খেলেছেন। শিরোপার নাগাল একবারও পাননি তিনি। ২০১৪ বিশ্বকাপের ফাইনালে দুর্ভাগ্যজনক হারটা এখনও পোড়ায় লিওনেল মেসিকে। এর পর দুটি কোপা আমেরিকার ফাইনালে উঠেও শিরোপা অধরাই রয়ে গেছে আলবিসেলেস্তেদের।

কলম্বিয়ার বিপক্ষে সেমিফাইনালে মেসির পা থেকে রক্ত ঝরেছে। সেই রক্তক্ষরণের দৃশ্য আর্জেন্টিনার আর মেসিভক্তদের হৃদয় কাঁপিয়ে দিয়েছে।

কিন্তু দেশের হয়ে শিরোপা না ছুঁতে পারার ব্যর্থতায় মেসির হৃদয়ে কতটা রক্তক্ষরণ হয়েছে তার হিসেবে রাখেনি কেউ।

এবার সময় এসেছে ব্যর্থতা ঘোচাবার।

কোপা আমেরিকা ফাইনালে রোববার বাংলাদেশ সময় ভোরে ব্রাজিলের বিপক্ষে স্বপ্নের ফাইনালে মুখোমুখি হতে চলেছে আর্জেন্টিনা।

হৃদয়ের অদৃশ্য রক্তক্ষরণ বন্ধের পাশাপাশি ম্যাচে লিওনেল মেসির ওপর আলাদা নজর থাকবে ফুটবলবিশ্বের।

কারণ এদিন মেসির সামনে থাকবে একাধিক রেকর্ড গড়ার হাতছানি।

মেসিভক্তদের সামনে সেই রেকর্ডগুলো উপস্থাপন করা হলো –

১. ফাইনালে মাঠে নামলেই কোপা আমেরিকায় সর্বাধিক ম্যাচ খেলার রেকর্ড স্পর্শ করবেন মেসি। রেকর্ড ভাগাভাগি করবেন চিলির সার্জিও লিভিংস্টোনের সঙ্গে। টুর্নামেন্টের শুরুতে মেসির কোপায় খেলায় ম্যাচের সংখ্যা ছিল ২৭টি। ফাইনালে মাঠে নামলে তা দাঁড়াবে ৩৪-এ।

২. দ্বিতীয় রেকর্ডটি ছোঁয়া অবশ্য বেশ মুশকিল। ব্রাজিলের বিপক্ষে ৪ গোল দিতে হবে এ রেকর্ড ছুঁতে।
বর্তমানে কোপায় মেসির গোল সংখ্যা ১৩। আর শতবর্ষের এই ১০ জাতির টুনামেন্টে সর্বোচ্চ গোলদাতা দুজন। ব্রাজিলিয়ান তারকা জিজিনিও এবং স্বদেশি তারকা নরবের্তো রদ্রিগেজ। তাদের গোল সংখ্যা ১৭।

আদপে মুশকিল দেখালেও অসম্ভবকে সম্ভব করতে মেসির জুড়ি নেই। হয়েও যেতে পারে সেই রেকর্ড।

অবশ্য ইতোমধ্যে এবারের কোপায় বেশ কিছু রেকর্ড গড়েছেন আর্জেন্টাইন জাদুকর।

সে রেকর্ডগুলো হলো –

১. সতীর্থ হাভিয়ের ম্যাসচেরানোকে (১৪৭) পেছনে ফেলে বলিভিয়ার বিরুদ্ধে গ্রুপ পর্যায়ের শেষ ম্যাচে লা আলবিসেলেস্তের হয়ে সর্বোচ্চ ম্যাচ খেলার নজির গড়েছেন মেসি। বর্তমানে তার খেলা আন্তর্জাতিক ম্যাচের সংখ্যা ১৫০।

২. ম্যাসচেরানোর বদলেই সবচেয়ে বেশিবার ছয়বার কোপা আমেরিকায় অংশগ্রহণকারী আর্জেন্টাইন ফুটবলার এখন মেসিই।

৩. সেমিফাইনালে কলম্বিয়ার বিরুদ্ধে লাউতারো মার্টিনেজের গোলে নিজের পঞ্চম অ্যাসিস্টটি দেন মেসি, যা কোনো ফুটবলারের পা থেকেই একটি কোপা আমেরিকায় সর্বোচ্চ অ্যাসিস্ট সংখ্যা।

গোলের সংখ্যায়ও এগিয়ে তিনি। এখন পর্যন্ত ৪ গোল নিয়ে শীর্ষে আছেন মেসি। তাই গোল্ডেন বুটের প্রথম দাবিদার তিনিই।

সূত্র: গোল ডট কম

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here