সোনার বার
ফেনী জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

এক ব্যবসায়ীকে আটক করে তার কাছ থেকে ২০টি সোনার বার লুট করার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ফেনী জেলা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শকসহ ছয় কর্মকর্তাকে।

গ্রেপ্তার ছয় কর্মকর্তা হলেন- ফেনী জেলা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক (ওসি) মো. সাইফুল ইসলাম, উপপরিদর্শক (এসআই) মোতাহার হোসেন, নুরুল হক ও মিজানুর রহমান এবং সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) অভিজিৎ বড়ুয়া ও মাসুদ রানা।

মঙ্গলবার রাতে ফেনীতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন ফেনীর পুলিশ সুপার খোন্দকার নূরুন্নবী।

তিনি বলেন, লুট হওয়া সোনার বারগুলোর মধ্যে ১৫টি উদ্ধার করা হয়েছে।

ফেনী সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নিজাম উদ্দিন বলেন, চট্টগ্রাম শহরের হাজারী গলির স্বর্ণ ব্যবসায়ী গোপাল কান্তি দাস গত রোববার বিকেলে ২০টি সোনার বার নিয়ে ঢাকা যাচ্ছিলেন। ওই দিন সন্ধ্যা ছয়টার দিকে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ফেনী সদর উপজেলার ফতেহপুর রেলওয়ে ওভারপাস এলাকায় ডিবি পুলিশ তার গাড়ি থামায়। এরপর তাকে আটক করে সোনার বারগুলো ছিনিয়ে নেওয়া হয়। এ ঘটনায় সোমবার ফেনী সদর মডেল থানায় ওই ব্যবসায়ী মামলা করলে বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করে পুলিশ। ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ায় ডিবির ওই ছয় কর্মকর্তাকে মঙ্গলবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয়। বুধবার তাদের আদালতে সোপর্দ করা হবে।

ব্যবসায়ী গোপাল কান্তি দাস বলেন, ২০টি সোনার বারের বাজারমূল্য ১ কোটি ২৪ লাখ টাকা। রোববার সন্ধ্যায় সোনার বারগুলো তার থেকে ছিনিয়ে নেন ডিবির অভিযুক্ত ওই কর্মকর্তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here