হাফ ভাড়ার বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত গ্রহণ ছাড়ায় বৈঠক শেষ

0
11
বৈঠক
ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া নির্ধারণ নিয়ে অংশীজনদের সঙ্গে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) বৈঠকটি সিদ্ধান্ত ছাড়াই শেষ হয়েছে। দেড় ঘণ্টার বে‌শি সময় ধরে চলা বৈঠকে পরিবহন নেতাদের পক্ষ থেকে বিআরটিএ-কে টাস্কফোর্স গঠনসহ বেশ কয়েকটি প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। প্রস্তাবগুলো বিবেচনায় নিয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে বৈঠক এ জানানো হয়।

বিআরটিএ চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ মজুমদার এবং ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি খন্দকার এনায়েত উল্যাহ সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানান। শ‌নিবার বেলা ১১টা ৫০ মি‌নিটে বিআরটিএর প্রধান কার্যালয়ে এ বৈঠক শুরু হয়।

নূর মোহাম্মদ মজুমদার বলেন, শিক্ষার্থীদের জন্য ভাড়া কমানোর বিষয়ে বিআর‌টিএ অত্যন্ত আন্ত‌রিক। বৈঠকে বেশ কিছু বিষয় উঠে এসেছে। পরিবহন নেতাদের পক্ষ থেকে টাস্কফোর্স গঠনসহ বেশ কয়েকটি প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। সেগুলো বিবেচনা করে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

বিআরটিএ চেয়ারম্যান বলেন, ‘হাফ ভাড়া বাস্তবায়নে পরিবহন নেতারা আন্তরিক। কিন্তু তাদের যে ক্ষতি হবে তা কীভাবে পূরণ করা হবে? তাদের ক্ষতির জন্য কত ভর্তুকি দেওয়া হবে এসব সিদ্ধান্তের জন্য সরকার ও পরিবহন সংশ্লিষ্টদের পক্ষ থেকে টাস্কফোর্স গঠনের প্রস্তাব এসেছে। এ বিষয়ে সরকারসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আবার বৈঠক হবে। আমরা আবারও বৈঠক করব। যত দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া যায় সে চেষ্টা করা হবে।’
তিনি জানান, বৈঠকে ঢাকায় কত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, কতজন ছাত্র, তাদের মধ্যে কতজন বাসে ওঠে এসব বিষয়ে তালিকা চেয়েছেন পরিবহন নেতারা। আমরা এ বিষয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করব। তারা তথ্য দেবেন।
ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়ে উল্লাহ বলেন, ‘ঢাকার শতকরা ৮০ শতাংশের মতো বাস মালিক গরিব। তারা যদি হাফ ভাড়া নেয় সরকার কীভাবে তাদের এ ক্ষতি পোষাবে আগে সেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। আমরা শিক্ষার্থীদের দাবি মেনে নিতে চাই। এ ব্যাপারে আমরা অত্যন্ত আন্তরিকও। কিন্তু আগে অনেকগুলো বিষয়ে সমাধান করতে হবে। আমাদের পক্ষ থেকে কিছু প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে সেগুলোর সমাধানের মাধ্যমে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।’
কারা শিক্ষার্থী আর কারা নয়, এ বিষয়েও জটিলতা রয়েছে জানিয়ে এনায়েত উল্লাহ বলেন, ‘বাসে উঠে সবাই বলবে আমরা ছাত্র। অনেকে এ সুবিধা নেওয়ার জন্য নতুন করে আইডি কার্ড বানিয়ে নেবে। সরকার এটার সমাধান কীভাবে করবে সেটাও দেখতে হবে।’
এ সময় মহাসচিব প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে শ্রেণিকক্ষে ফিরে যাওয়ার অনুরোধ জানান। একই সঙ্গে তিনি পরিবহন ভাঙচুর, শ্রমিকদের মারধরসহ বিভিন্ন ধরনের অনৈতিক কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানান।
বৈঠকে ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সভাপতি আব্দুল বাতেন বাবু, ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) সহকারী কমিশনার মো. আশফাকসহ বিআরটিএর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং বাস মালিক সমিতি ও শ্রমিক ফেডারেশনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
এদিকে, গতকাল শুক্রবার সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, শিক্ষার্থীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে সারাদেশে বিআরটিসি বাসের ভাড়া ৫০ শতাংশ কমানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। আগামী ১ ডিসেম্বর থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। শিগগিরই এ বিষয়ে বিআরটিসি প্রজ্ঞাপন জারি করবে।
এর আগে বৃহস্পতিবার বিআরটিএর প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস চালুর বিষয়ে বাস মালিকদের রাজি করাতে পারেনি সরকার।

সুত্র: এএস/

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে