বাঘায় আদালতের রায় উপেক্ষা করে জমি জবরদখলের চেষ্টা

0
32

রাজশাহীর বাঘায় আদালতের রায় উপেক্ষা করে পৈতৃক জমি জবরদখল ও ঘর মেরামতে বাঁধার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন ভুক্তভোগী পরিবার। বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১ টার সময় উপজেলার গড়গড়ি ইউনিয়নের খানপুর বাজারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে ভুক্তভোগী শাহাজাহান আলী বললে, গত বছর কাল বৈশাখী ঝড়ে আমাদের হক দখলীয় সম্পত্তির উপর নির্মিত টিনসেডের চালা (টিন) উড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পরে তা মেরামত করতে গেলে প্রতিপক্ষ আফতাব আলী ও তার সঙ্গীয় ৩/৪ জন গত ২/১২/২০২২ তারিখ অনুমান সকাল ১০ টার সময় তফসিল বর্ণিত দোকান ঘর ও বাড়ীর ভিতর অনধিকার প্রবেশ করে দোকান ঘর মেরামতে বাঁধাসহ ভোগদখলী সম্পত্তি থেকে আমাদের বেদখল করবার হুমকি প্রদান করেন।

এইভাবে ক্রমাগত প্রতিপক্ষ উক্ত সম্পত্তিতে জোর পূর্বক অনুপ্রবেশ করে আমাদের বেদখল করার অপচেষ্টায় লিপ্ত হয়ে ভয়ভীতি ও উচ্ছেদের হুমকি প্রদান করতে থাকলে উপায়ন্তর না পেয়ে গত ২৭/১২/২০২২ ইং তারিখে আদালতে অভিযোগ দাখিল করি। অভিযোগের ভিত্তিতে, মহামান্য আদালত বিষয়টি সুষ্ঠ তদন্তের জন্য বাঘা উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেন। তিনি বিষয়টি তদন্ত করে আদালতে প্রতিবেদন জমা দেন। প্রতিবেদন ও নালিশী সম্পত্তির দলিল সুষ্ঠ যাচাই করে গত ৫/১১/২০২২ ইং তারিখে আদালত শাহাজাহান আলীর পক্ষে রায় প্রদান করে। মামলাটির নিষ্পত্তি করে দেয়।

শাহাজাহান বলেন, গত বৃহস্পতিবার সকালে ক্ষতিগ্রস্ত দোকান মেরামত করতে গেলে আদালতের রায় থাকা সত্ত্বেও আফতার আলী প্রভাব খাটিয়ে আমাদের কাজ করতে দেয়নি। আফতাব তার ছেলে আরিফ সহ তাদের সঙ্গীয় লোকজন সংঘাত বাঁধানোর পরিকল্পনা করে। এই জমি আমার নিজ দখলে থাকা সত্বেও আমি ভোগ করতে পারছি না। আফতাব আলী আদালতের রায় অমান্য করে জোরপূর্বক জমি দখলের চেষ্টা করছে।

প্রতিপক্ষগণ যাতে রায় প্রাপ্ত সম্পত্তিতে বেআইনী ভাবে অনুপ্রবেশ করে আমাদের শান্তিপূর্ণ ভোগ দখলে বাঁধা সৃষ্টি করতে না পারে তার জন্য আইনিসেবা পেতে নিরুপায় হয়ে বৃহস্পতিবার বিকালে বাঘা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করি। ঘটনা সুষ্ঠ তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন‍্য প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছি। থানা পুলিশ তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা নিবেন বলে আশ্বাস্থ করেছেন।

মানববন্ধন অনুষ্ঠানে অন্যান্যরা বক্তব্যে বলেন, শাহাজাহান আলী ২০ বছরের অধিক সময় ধরে তার জমি ভোগ দখল করছেন। সেখানে তার নিচতলায় বসতঘর ২য়তলায় টিনসেড বিশিষ্ট ৪টি দোকানঘর ভাড়া দিয়ে আসছেন। কিন্তুু হঠাৎ ঐ জমির মালিক বলে দাবি করেন, মৃত কৈয়ব আলীর ছেলে আফতাব আলী। তিনি এই জমি কিনেছেন বলে দাবি করেন।

উক্ত মানববন্ধনে ভুক্তভোগী শাহাজাহান আলীর নিকট স্বজন ও এলাকাবাসীরা উপস্থিত ছিলেন।

বাঘা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খায়রুল ইসলাম জানান, আমরা এই বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি। সুষ্ঠ তদন্ত অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে