রাজশাহীতে বিএনপির ১৩শ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার: মিনু

নিজস্ব প্রতিবেদক

0
4

নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এক দফা দাবি আদায় করতে গিয়ে নানামুখি সংকটে পড়েছে বিএনপি। অধিকাংশ নেতা এখন জেলে, যারা জেলের বাইরে আছেন তারাও সরাসরি আন্দোলনে নামতে পারছেন না। মাঠে নামলেই আটক হবেন। তাইতো তারাও রয়েছেন আত্মগোপনে। এছাড়া কেন্দ্র থেকে তৃনমূল পর্যন্ত সব নেতাদের বিরুদ্ধে রয়েছে একাধিক মামলা। রাজশাহীতে ২৮ অক্টোবরের পর থেকে ১৩শ’ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএনপি নেতৃবৃন্দ। রাজশাহী জেলা ও নগরীর বিভিন্ন থানায় নতুন ও পুরনো মিলিয়ে ৪০ টি মামলায় এসব নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে।

শনিবার বেলা ১১টায় সংবাদ সম্মেলন করে এসব তথ্য তুলে ধরেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু। সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি নেতাকর্মীদের নামে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার ও মুক্তির দাবি জানানো হয়েছে।

মিজানুর রহমান মিনু বলেন, রাজশাহী জেলা ও মহানগর শান্তির নগরী। বিএনপি গণতান্ত্রিকভাবে আন্দোলন করে। কোন নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার না করে এবং ভুয়া মিথ্যা ও বানোয়াট মামলা প্রদান না করে। আমরা রাজশাহী জেলা ও মহানগর হতে গ্রেফতারকৃত সকল রাজবন্দি নেতাকর্মীর মুক্তির দাবি করছি এবং একই সাথে সকলের মামলা প্রত্যাহারের আহ্বান জানাচ্ছি। আমরা আশা করি সরকারের শুভ বুদ্ধির উদয় হবে। দেশের গণতন্ত্র পতিষ্ঠায় ভোটাধিকার প্রয়োগ, দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতি রোধ, হত্যা, গুম, খুন, নির্যাতন নিপীড়ন বন্ধকরে জনগণের দাবির মুখে সরকার পদত্যাগ করলে দেশে শান্তি ফিরিয়ে আসবে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি কেন্দ্রীয় কমিটির বন বিষয়ক সম্পাদক ও রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন সাবেক মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, মহানগর আহ্বায়ক অ্যাড. এরশাদ আলী ঈশা প্রমুখ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে